লস এঞ্জেলেসে সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় স্মরণে বাদামের শোকসভা


সুনীল আকাশের প্রান্তে তোমার ঠিকানা, লস এঞ্জেলেসে সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় স্মরণে বাদামের শোকসভা।

This slideshow requires JavaScript.


লস এঞ্জেলেস, অক্টোবর ২৮(একুশ নিউজ মিডিয়া)ঃ
  উপমহাদেশের প্রখ্যাত সাহিত্যিক, বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের কলমবন্ধু, প্রবাসী-প্রিয় সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়ের মৃত্যুতে লস এঞ্জেলেসের সাহিত্যাঙ্গনে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। ‘সুনীল আকাশের প্রান্তে তোমার ঠিকানা’ ব্যানারে বাংলাদেশ এসোসিয়েশন অব ডাইভার্সিটি আর্টস এন্ড মিডিয়া (বাদাম) স্থানীয় একটি রেস্টুরেন্টে সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়ের স্মরণে এক শোকসভার আয়োজন করে। প্রবাসে সুনীল যে কতোটা জনপ্রিয় ছিলেন তা শোকসভার মোড়কে প্রবাসীদের সুনীল স্মৃতি-চারণ সভায় রূপ নেয়।

মিডিয়া ও সাংস্কৃতিককর্মীদের প্রাণপ্রিয় সংগঠন বাদামের আয়োজনে মাত্র দুইদিনের প্রস্তুতিতে তাৎক্ষনিক শোকসভায় কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ সহ যথেষ্ট সংখ্যক সুনীল ভক্তরা এই নিবিড় শোকসভায় যোগ দেন। শ্রদ্ধা জানিয়ে ক্ষণিকের নীরবতার মাঝে স্মরনসভা শুরু হয়। স্মরনসভায় বক্তারা বলেন, দুই বাংলার সাহিত্য অঙ্গনের তারকা পরস্পরের ঘনিষ্ঠ সুনীল আর হুমায়ুন আহমেদের তিরোধানে বাংলা সাহিত্যের অপূরণীয় ক্ষতি আর শূণ্যতা হয়তো রয়েই যাবে আরও বহুকাল। ‘পূর্ব-পশ্চিম’ সাহিত্যকর্ম থেকে প্রবাসী জীবনের উপাখ্যানকে হৃদয়ে অমর করে রেখেছেন অভিবাসীরা। একাধারে কবি, ঔপন্যাসিক, ছোটগল্পকার, সাংবাদিক ও কলাম লেখক সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়ের অন্তিমযাত্রায় বাংলাদেশ তার পরম সুহৃদ হারালো।

কমিউনিটি নেতা মমিনুল হক বাচ্চু বলেন, সাহিত্য সম্মেলনে আসা সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় লস এঞ্জেলেসে লিটল বাংলাদেশ গড়ার ঘোষণার পুরোভাগে ছিলেন, সেই লিটল বাংলাদেশ প্রবাসী সুহৃদ সুনীলকে সারা জীবন মনে রাখবে। বাদামের আহবায়ক জাহান হাসান বলেন, পশ্চিম-বাঙলার কবি-সাহিত্যিকবৃন্দ পূর্ব-বাঙলার কবি-সাহিত্যিকদের কিছুটা ভিন্ন চোখে দেখলেও আমরা বাংলাদেশের মানুষরা রক্তদিয়ে অর্জন করা মাতৃভাষার সব সৃষ্টিকেই সন্মান ও লালন করি। বাদামের প্রধান পৃষ্ঠপোষক এম কে জামান নান্টু লেখকের জীবনের বিভিন্ন প্রাপ্তি ও উল্লেখযোগ্য দিক তুলে ধরেন। শোকসভায় স্মৃতিচারণ ও লেখকের বিভিন্ন গুণাবলী তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন- ড্যানী তৈয়ব, সৈয়দ এম হোসেন বাবু, শামসুদ্দিন মানিক, বুলবুল সিনহা, খোকন (আলাদীন), সাদিয়া, শওকত চৌধুরী, প্রমুখ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন তপন দেবনাথ ও কাজী মশহুরুল হুদা।


Pic Link: http://www.facebook.com/media/set/?set=a.10151206909286897.482352.826936896&type=1&l=cea9c80c0f

%d bloggers like this: