মানবিক বিপর্যয়ের আশঙ্কা বিশেষজ্ঞদের : রাজধানীতে ৫০ লাখের জায়গায় দেড় কোটি লোকের বসবাস


রাজধানীতে ৫০ লাখের জায়গায় দেড় কোটি লোকের বসবাস

মানবিক বিপর্যয়ের আশঙ্কা বিশেষজ্ঞদের

[রাজধানী

রাজধানী ঢাকা


আবুল কালাম

৩৬০ বর্গ কিলোমিটার আয়তনের ঢাকা শহরে এখন দেড় কোটি মানুষ বসবাস করছেন। এ অবস্থায় বিশেষজ্ঞরা মানবিক বিপর্যয়ের আশঙ্কা প্রকাশ করে বলেছেন, যে স্থানটি সর্বোচ্চ ৫০ লাখ মানুষের বসবাসের উপযোগী সেখানে এখনই প্রায় দেড় কোটি মানুষ বাস করলে এবং জনস্রোত অব্যাহত থাকলে আগামী দশ বছরের মধ্যে বিপর্যয় নেমে আসবে। ফলে ঢাকাকে পরিত্যক্ত নগরী ঘোষণা করতে হবে।

জাতীয় জনসংখ্যা গবেষণা ও প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠানের (নিপোর্ট) হিসাব অনুযায়ী, ঢাকা মহানগরীতে এখন প্রায় এক কোটি ৩০ লাখ মানুষের বসবাস। এ হিসাবে নগরীতে প্রতি বর্গকিলোমিটারে বর্তমানে ২৭ হাজার ৭০০ মানুষ বসবাস করছেন।

নগর গবেষকদের মতে, ঢাকায় প্রতিদিন দুই হাজার ১৩৬ জন নতুন লোক আসছে। এভাবে বছর শেষে মহানগরীতে যুক্ত হচ্ছে সাত লাখ ৮০ হাজার। মানুষ যে হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে সে হারে সুবিধা না বাড়ায় পানি, বিদুøৎ, গ্যাসসহ বিভিন্ন সমস্যা দিনদিন প্রকট হচ্ছে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের প্রফেসর ড. আব্দুর রব জানান, অপরিকল্পিত নগরায়ন, জনসংখ্যা বৃদ্ধি ও যানজটের চাপে রাজধানী ঢাকা প্রতিদিনই তার স্বাভাবিক গতি হারাচ্ছে। এ ছাড়া বিভিন্ন অব্যবস্থাপনায় ঢাকা পরিণত হচ্ছে এক অকার্যকর নগরীতে। তিনি আশঙ্কা প্রকাশ করে বলেন, নগরীতে চলমান জনস্রোত অব্যাহত থাকলে আগামী দশ বছরের মধ্যে নাগরিক জীবনের সর্বক্ষেত্রে বিপর্যয় নেমে আসবে। যাতায়াতের ক্ষেত্রে পরিবহন তো দূরের কথা, হেঁটে চলাও দুষ্কর হয়ে পড়বে।

ঢাকা শহর

ঢাকা শহর

তিনি বলেন, ৩৬০ বর্গ কিলোমিটার আয়তনের ঢাকা শহর সর্বোচ্চ ৫০ থেকে ৬০ লাখ মানুষের বসবাসের উপযোগী হলেও সেখানে বাস করছে প্রায় দেড় কোটি মানুষ। ফলে দিনদিন আবাসন, গ্যাস, বিদুøৎ, পানি, আইনশৃঙ্খলাসহ বিভিন্ন সমস্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। তিনি জানান, তৈরী পোশাক শিল্পের ১৮ লাখ শ্রমিক এখন ঢাকা শহরে বাস করছেন। এ ছাড়া আছে প্রায় ১০ লাখ নির্মাণশ্রমিক।

ড. আব্দুর রব জানান, বিশ্বের ঘনবসতিপূর্ণ শীর্ষ ৫০ মেট্রোপলিটন সিটির মধ্যে ঢাকার অবস্থান ৪০তম। তিনি বলেন, বিভিন্ন সংস্থার হিসাব বাদ দিলেও শুধু ঢাকা সিটি করপোরেশনের হিসাবে বর্তমানে ঢাকার লোকসংখ্যা এক কোটি ২০ লাখ। এ হিসাবে রাজধানীতে প্রতি বর্গকিলোমিটারে জনসংখ্যার সংখ্যা দাঁড়াবে ৩৩ হাজার ৩৩৩ জন। এতে বিশ্বের জনবহুল সিটির মধ্যে ঢাকার প্রকৃত অবস্থান হবে ষষ্ঠ।

ঢাকায় জনসংখ্যা বৃদ্ধি সম্পর্কে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের গবেষণা থেকে জানা গেছে, ১৯৭৪ সালে ঢাকা শহরে লোকসংখ্যা ছিল প্রায় ১৮ লাখ। গত ৩৬ বছরে তা বেড়ে এখন প্রায় এক কোটি ৩৭ লাখ। তাদের মতে, ১৯৫১ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত ৫০ বছরে ঢাকা শহরের জনসংখ্যা প্রায় ২৫ গুণ বৃদ্ধি পেলেও আয়তন বেড়েছে প্রায় ১৮ গুণ।

ড. আব্দুর রবের মতে, ঢাকা শহরকে মানবিক বিপর্যয় থেকে রক্ষা করতে হলে ঢাকার চার দিকে চারটি স্যাটেলাইট শহর নির্মাণ জরুরি হয়ে পড়েছে। এ ছাড়া রাজধানীর ভেতর থেকে গার্মেন্ট, সরকারি সব ভবন, বিশ্ববিদ্যালয় ও শিল্পকারখানা বাইরে স্থানান্তর করতে হবে। তিনি বলেন, যত্রতত্র বহুতল ভবন নির্মাণের অনুমতি না দিয়ে পরিকল্পিত নগর গঠনের উদ্যোগ এখনি না নিলে আগামী কয়েক বছরের মধ্যে ঢাকাকে পরিত্যক্ত নগরী ঘোষণা করতে হবে।

A panoramic view of downtown Dhaka, Bangladesh

A panoramic view of downtown Dhaka, Bangladesh

বিরাজমান পরিস্থিতি সম্পর্কে রাজউক চেয়ারম্যান জানান, পরিস্থিতির ভয়াবহতা মোকাবেলায় রাজউক উদ্যোগ নিয়েছে। বর্তমানে ঢাকার আয়তন ৫৯০ বর্গমাইল বাড়িয়ে নতুন প্লান তৈরি করা হয়েছে। তিনি বলেন, দিন যত যাচ্ছে পরিস্থিতি তত ভয়াবহতার দিকে ধাবিত হচ্ছে। এমন অবস্থা অব্যাহত থাকলে ২০১৫ সালের মধ্যে ঢাকায় লোকসংখ্যা বেড়ে এক কোটি ৮০ লাখে দাঁড়াবে। এতে এ শহর বসবাসের অনুপযোগী হয়ে পড়বে।
তিনি বলেন, পরিস্থিতির ভয়াবহতা মোকাবেলায় রাজউক বর্তমানে যে নকশা তৈরি করেছে তা বাস্তবায়নে সরকারসহ সবাইকে সহযোগিতার মনোভাব নিয়ে এগিয়ে আসতে হবে। কোনো কারণে যদি তার বাস্তবায়ন বিঘ্নিত হয় তবে আগামী কয়েক বছরের মধ্যে ঢাকাকে পরিত্যক্ত ঘোষণা করতে হবে।

jahan hassan ekush tube bangla desh জাহান হাসান, লস এঞ্জেলেস. বাংলাদেশ. বাংলা, আমাদের সময়, আলোচনা, ইত্তেফাক, কালের কণ্ঠ, জনকন্ঠ, ডেসটিনি, দিগন্ত, দিনের শেষে, নয়া দিগন্ত, প্রথম আলো, বাংলাদেশ প্রতিদিন, ভোরের কাগজ, মানবজমিন, মুক্তমঞ্চ, যায় যায় দিন, যায়যায়দিন, যুগান্তর, সংগ্রাম, সংবাদ, আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জামাত, রাজাকার, আল বদর, একুশ, প্রবাস, প্রবাসী, ঠিকানা, ইউএসএ, আমেরিকা, অর্থনীতি, প্রেসিডেন্ট ওবামা,মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র,