লস এঞ্জেলেসে বাফলার অভিষেক অনুষ্ঠান ও ইফতার মাহফিল


লস এঞ্জেলেসে বাফলার অভিষেক অনুষ্ঠান ও ইফতার মাহফিল

বাফলার অভিষেক অনুষ্ঠানের ছবি 2013:
icon

বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে গত ২৮ জুলাই লস এঞ্জেলসের দ্য বেভারলি গারল্যান্ড হলিডে ইন হোটেলের বলরুমে কমিউনিটির গণ্যমান্য ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে বাংলাদেশ ইউনিটি ফেডারেশন অব লস আঞ্জেলেসের (বাফলা) ২০১৩-১৪ সনের নতুন পরিচালনা কমিটির এক অনাড়ম্বর অভিষেক অনুষ্ঠিত হয়।
 বাংলাদেশ ইউনিটি ফেডারেশন অব লস আঞ্জেলেস বাফলা  BUFLA 2013-14 Cabinet  (R-L) President Shiper Chowdhury, Faruque Howlader - Public Relations Secretary, Mohammad Amzad Hossain - Organizing Secretary, Layek Ahmed - Finance secretary, Abul Hasnath Rayhan - Vice President, Anjuman Ara Sheulee - General Secretary

বাংলাদেশ ইউনিটি ফেডারেশন অব লস আঞ্জেলেস বাফলা
BUFLA 2013-14 Cabinet
(R-L) President Shiper Chowdhury, Faruque Howlader – Public Relations Secretary, Mohammad Amzad Hossain – Organizing Secretary, Layek Ahmed – Finance secretary, Abul Hasnath Rayhan – Vice President, Anjuman Ara Sheulee – General Secretary


স্বাগত বক্তব্যে ২০১২-১৩ সনের বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ড্যানি তৈয়েব বলেন, গত সাত বছরে আগে লস এঞ্জেলেসের প্রায় সকল সংগঠন নিয়ে গঠিত এই ফেডারেশন বর্তমানে প্রবাসে সামাজিক সাংস্কৃতিক অঙ্গনে সবচেয়ে অগ্রণী ভূমিকা পালন করছে।

তিনি তার টার্মে থাকাকালীন ২০১৩ সালের সফল বাফলা প্যারেডসহ প্রথম ঈদ রিইউনিয়ন ও মেলা, একুশে ফেব্রুয়ারী উদযাপন, বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশন অব নর্থ আমেরিকা ও এল এ সিটির সহযোগীতায় ফ্রি হেলথ ক্লিনিক ও সেমিনার, জব ফেয়ার, দেশে-বিদেশে দুর্গতদের সাহায্যার্থে ফান্ডরেইজিং সহ মূলধারায় বাংলাদেশীদের সম্মানজনক অবস্থায় প্রতিষ্ঠিত করতে লস এঞ্জেলেসের বুকে লিটল বাংলাদেশ সৃষ্টি ও সাম্প্রতিক মেয়র নির্বাচনে বর্তমান মেয়রের নির্বাচনী প্রচারণায় সক্রিয় অংশগ্রহনের বর্ননা দেন।

This slideshow requires JavaScript.


অনুষ্ঠান শুরু হয় মোঃ আমজাদ হোসেনের পরিচালনায় হামদ, নাথ ও সুরা আবৃত্তি প্রতিযোগীতা দিয়ে। বাফলার প্রথম মহিলা প্রেসিডেন্ট ড্যানি তৈয়েব পুরষ্কার বিতরণ করেন ও নতুন কমিটিকে স্বাগত জানান। নতুন প্রজন্মের চোখে গত বছরে বাফলার উল্লেখ্যযোগ্য কার্যক্রম নিয়ে আদনান তৈয়েবের স্লাইডশো পরিবেশিত হয়। বাফলার এক্সিকিউটিভ মেম্বারসহ কমিউনিটির গণ্যমান্য ব্যক্তিরা বাফলার কার্যক্রম নিয়ে বক্তৃতা দেন। বাফলার বোর্ড অব ট্রাষ্টির চেয়ারম্যান নাসিমুল গনি ও সদস্য টিয়া হাবিব নতুন কমিটির নবনির্বাচিত প্রতিনিধিদের শপথবাক্য পাঠ করান।

নবনির্বাচিত ক্যাবিনেট সদস্যরা হলেন, সভাপতি শিপার চৌধুরী, সহসভাপতি আবুল হাসনাত রাইহান, সাধারণ সম্পাদক আঞ্জুমান আরা শিউলী, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ আমজাদ হোসেন, পাবলিক রিলেশন সম্পাদক ফারুক হাওলাদার, কোষাধ্যক্ষ লায়েক আহমেদ এবং সাংস্কৃতিক সম্পাদক দিলুর চৌধুরী।

নুতন ক্যাবিনেটকে শুভেচ্ছা, শুভকামনা ও সহযোগিতা করার অঙ্গীকার করে বক্তব্য দেন ডাক্তার এম এ হাশেম, খন্দকার আলম, আবুল কাশেম তোহা, নজরুল ইসলাম কাঞ্চন, নজরুল আলম, সালেক সোবহান, শামসুদ্দিন মানিক, সাইফ কুতুবী, জাকির খান, এনামুল হক এমরান, প্রফেসর আলী আকবর, বীর মুক্তিযোদ্ধা এম এ মালেক, এম কে জামান, মুমিনুল হক বাচ্চু, ওমর হুদা, মুজিব সিদ্দীকি, সালেহ কিবরিয়া, জসিম আশরাফি আহমেদ, বাফলার প্রতিষ্ঠাতা ডঃ মাহবুব খান প্রমুখ।
ইফতারী, নামাজ ও ডিনারের মাধ্যমে অনুষ্ঠান শেষ হয়।

প্রবাসে সাংবাদিকতা, মিডিয়া ও শিল্প-সাহিত্য-সংষ্কৃতিতে উল্লেখযোগ্য কর্মের স্বীকৃতিস্বরূপ একুশ নিউজ মিডিয়ার সম্পাদক ও প্রকাশক জাহান হাসানকে ক্রেষ্ট দিয়ে সম্মাননা প্রদান করা হয়।

#jahanhassan #জাহানহাসান #বাফলা #BUFLA #littlebangladesh #লিটলবাংলাদেশ

BUFLA Awarded to Jahan Hassan in recognition for outstanding contributions to Bengali Literature, Language, Journalism and Media.
This Award honors public service journalism that explores and exposes an issue of importance to immigrant in the United States. #jahanhassan

বাফলার অভিষেক অনুষ্ঠানের পরে সামাজিকতার ছবি 2013
icon

Social gathering after BUFLA Iftar & inauguration 2013 Pictures


http://goo.gl/Zv26yM
Activities of BUFLA’s Slide Show :

Advertisements

লস এঞ্জেলেসের মেয়র এরিক গার্সেটীকে সংবর্ধনা


দল মতের ঊর্ধ্বে উঠে লস এঞ্জেলেসের কমিউনিটির ঐক্যবদ্ধ আয়োজন
লস এঞ্জেলেসের মেয়র এরিক গার্সেটীকে সংবর্ধনা

২৫ অগাস্ট ২০১৩
25 August, 2013
LA Korean Methodist Church
433 S Normandie Ave, Los Angeles, CA 90020
5-10 PM
Save the date

লস এঞ্জেলেসে বিশাল ইফতারি মাহফিল অনুষ্ঠিত


লস এঞ্জেলেসে বিশাল ইফতারি মাহফিল অনুষ্ঠিত

ইসলামের আদর্শ ও শিক্ষা বিস্তারে সেবাধর্মী প্রতিষ্ঠান মুসলিম উম্মাহ অফ নর্থ আমেরিকা (মুনা), সাউদার্ন ক্যালিফোর্ণিয়া চ্যাপ্টারের আয়োজনে সুধীজনদের নিয়ে ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল রবিবার লিটল বাংলাদেশের শ্যাটো রিক্রিয়েশনাল সেন্টারে লস এঞ্জেলেসের সর্ববৃহৎ এই বিশাল ইফতার মাহফিলের আয়োজন করা হয়। ইফতারের পূর্বে ইসলামী মূল্যবোধ সম্পর্কে এক সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।
MUNA Iftar 2013
আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, মাগফিরাত ও নাজাতের মাস রমজান। তাই আল্লাহর সান্নিধ্য পেতে বেশি বেশি করে নামাজ ও অর্থসহ কুরআন পড়তে হবে। এ সময় বক্তব্য রাখেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ওয়াশিংটন থেকে আগত মুনা’র ওয়েষ্টার্ন জোনের সভাপতি বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ অধ্যাপক ডঃ রিয়াজুল ইসলাম, ইসলামিক সার্কেল অব নর্থ আমেরিকা’র (ইকনা) ডেপুটি সেক্রেটারি জেনারেল ওয়াক্কাস সাঈদ, বিশেষ অতিথি মুনা ক্যালিফোর্ণিয়া চ্যাপ্টারের ময়েজউদ্দীন প্রমুখ। মুনা সাউদার্ন ক্যালিফোর্ণিয়া চ্যাপ্টারের সভাপতি অধ্যাপক আলী আকবর আগত অতিথিদের ধন্যবাদ জানান ও মুনাজাত পরিচালনা করেন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন আনিসুর রহমান।

কমিউনিটির মধ্যে ভ্রাতৃত্ব ও সহনশীলতা আনয়নে মুনা’র এই আয়োজনকে কমিউনিটির পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জানান বাংলাদেশ ইউনিটি ফেডারেশন অব লস আঞ্জেলেসের (বাফলা) প্রেসিডেন্ট ইলেক্ট শিপার চৌধুরী। লস এঞ্জেলেসের এই ইফতার মাহফি্লে দল-মত নির্বিশেষে প্রচুর সংখ্যক প্রবাসী যোগ দেন।
MUNA Iftar 2013
#MUNA #MuslimUmmahofNorthAmerica #LittleBangladesh
Pic Link: http://goo.gl/WUDaL

লস এঞ্জেলেসে সাম্প্রদায়িক ও জাতিগত আক্রমণের বিরুদ্ধে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান


This slideshow requires JavaScript.

লস এঞ্জেলেসে সাম্প্রদায়িক ও জাতিগত আক্রমণের বিরুদ্ধে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান

লস এঞ্জেলেস (একুশ নিউজ মিডিয়া): গত ১০ই অক্টোবর বুধবার লস এঞ্জেলেসের হিন্দু সম্প্রদায় চট্টগ্রামের পটিয়া ও কক্সবাজারের রামু, উখিয়ার মন্দির, বৌদ্ধবিহার ও বসতিতে সাম্প্রদায়িক তাণ্ডবের প্রতিবাদে ও দোষীদের শাস্তির দাবিতে লস এঞ্জেলেস্থ বাংলাদেশ কন্সুলেটের সামনে মানববন্ধনের আয়োজন করে ও কন্সুলেটে স্মারকলিপি প্রদান করে।

উইলশার সড়কে লস এঞ্জেলেস হিন্দু-বৌদ্ধ পরিষদ ও স্থানীয় কমিউনিটি নেতা-কর্মীরা শনিবার দুপর ১২টা থেকে ৩টা পর্যন্ত এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন। মানবন্ধন কর্মসূচি চলাকালে নেতৃবৃন্দরা কন্সাল জেনারেল মোঃ এনায়েত হোসেনের সাথে সাক্ষাৎ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান করেন। কমিউনিটির পক্ষ থেকে বৌদ্ধ ও হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের বিহার ও মন্দির বসতবাড়িতে ভাংচুর লুটপাট, অগ্নিসংযোগের তীব্র নিন্দা, প্রতিবাদ ও প্রবাসীদের গভীর উদ্বেগের কথা জানান এবং দোষীদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন। একই সাথে ক্ষতিগ্রস্তদের পুর্ণবাসনের দাবি জানানো হয়। মানবন্ধন কর্মসূচি থেকে আমেরিকার আদলে হেইট ক্রাইম বিল পাশের জোর দাবি জানানো হয়। বাংলাদেশে হিন্দুধর্ম্বাবলীরা যাতে নির্বিঘ্নে পূজা উদযাপন করতে পারেন তার জন্য প্রয়োজনীয় প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রহণের জোর দাবি জানান।Hindu community protest in Los Angeles Ekush News Media / BCNN

মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান কর্মসূচীতে হিন্দু সম্প্রদায়ের পক্ষে ডাঃ পরিতোষ মজুমদার, ডাঃ প্রদীপ চৌধুরী, ডাঃ তপন সরকার, অসীম ভৌমিক, অসিত শীল, দীপক মিস্ত্রী সহ অনেকে উপস্থিত ও বক্তব্য রাখেন। বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের পক্ষে মিঠু বড়ুয়া, বাবু বড়ুয়া সহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন। স্থানীয় কমিউনিটির লিডার মমিনুল হক বাচ্চু সহ হিন্দু ও বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের একটি দল কন্সাল জেনারেল মোঃ এনায়েত হোসেনের সাথে মত-বিনিময় করেন। কন্সাল জেনারেল এই ন্যাকারজনক ঘটনায় গভীর দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, এই ঘটনায় আমাদের দেশের ভাবমূর্তি, ইমেজ নষ্ট হচ্ছে। ডিপ্লোম্যাটিক কোরে আমাদের দেশ নিয়ে বিভিন্ন দেশের উদ্বেগে বাংলাদেশ সরকার বিব্রত ও লজ্জিত। সরকার দোষী ব্যক্তিদের তদন্তের মাধ্যমে খুঁজে বের করার আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে এবং ঘৃণিত কাজের জন্য দায়ী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। এই ধরনের ঘটনার যাতে পুনরাবৃত্তি না ঘটে তার জন্য সরকার যথার্থ কার্য্যকরী পদক্ষেপ নিয়েছে।Hindu community protest in Los Angeles Ekush News Media / BCNN

লস এঞ্জেলেস কমিউনিটির অনেক সদস্যরা মানববন্ধনে উপস্থিত হয়ে তাদের সহমর্মিতা প্রকাশ করেন। বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িক ও জাতিগত আক্রমণের বিরুদ্ধে লস এঞ্জেলেসের বিভিন্ন সংগঠন, নেতৃবৃন্দ পৃথক পৃথক ভাবে তীব্র ক্ষোভ ও প্রতিবাদ জানিয়েছে। বাংলাদেশ ইউনিটি ফেডারেশন অব লস আঞ্জেলেস (বাফলা) সামাজিক নেটওয়ার্ক থেকে উদ্ভূত ব্যক্তিগত এই উস্কানিমূলক কর্মকান্ড থেকে সবাইকে সতর্ক থাকবার জন্য এবং ক্ষতিগ্রস্তদের প্রতি সমবেদনা ও দুষ্কৃতিকারীদের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য আহ্বান জানিয়েছে।Hindu community protest in Los Angeles Ekush News Media / BCNN
Photo Courtesy: BCNN – Los Angeles

 

 

এনাহেইমে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১১৩ তম জন্ম জয়ন্তী উদযাপন


এনাহেইমে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১১৩ তম জন্ম জয়ন্তী উদযাপন


ছবিঃ জাহান হাসান, একুশ

লস এঞ্জেলেস, মে ২৫, ২০১২। আজ ২৫ মে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১১৩ তম জন্ম জয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষে এন আর বি ইউ এস এ, মেড ইন বাংলাদেশ ও বাংলার বিজয় বহর ২০১২’র যৌথ উদ্যোগে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। ডিজনীল্যান্ড-এর জন্মস্থান ক্যালিফোর্ণিয়ার এনাহেইম শহরের এক মিলনায়তনে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ক্যালিফোর্ণিয়া ষ্টেট পলিটেকনিক ইউনিভার্সিটির ইলেকট্রিক্যাল এন্ড কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিং ডিপার্টমেন্টের প্রধান ড প্রফেসর রফিকুজ্জামান। অনুষ্ঠানে আলোচনায় কবি কাজী নজরুল ইসলামের সাহিত্যকর্ম, সৃজনকর্ম সম্পর্কে নানা দিক তুলে ধরা হয়। কবির কবিতা থেকে আবৃত্তি করা হয়। সাংস্কৃতিক পর্বে স্থানীয় প্রবাসী চলচ্চিত্র অভিনেতা মিঠুন ও তাস হক নজরুলের গান পরিবেশন করে।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- ভাষা সৈনিক ও চিকিৎসাবিদ ডাঃ মোঃ সিরাজুল্লাহ, সাউথ এশিয়ান বিজনেস নেটওয়ার্কের (সাবান) প্রধান মোহাম্মদ ইসলাম, ইউ এস বি বি এফ এর ডিরেক্টর সাংবাদিক মোঃ জাফরুল্লাহ, মূলধারার পরিচালক, চলচ্চিত্র নির্মাতা ও লেখক মোঃ ইসমাইল হোসেন, বাংলাদেশ ইউনিটি ফেডারেশন অব লস আঞ্জেলেসের (বাফলা) প্রেসিডেন্ট শামসুদ্দিন মানিক, আওয়ামী লীগ ক্যালিফোর্ণিয়ার প্রেসিডেন্ট সোহেল রহমান বাদল, সামাজিক সংগঠন বনফুল ও বাংলাদেশ ফিজিশিয়ান অর্গানাইজেশন অব ক্যালিফোর্ণিয়ার কো-ফাউন্ডার ডাঃ মোয়াজ্জেম ও ডাঃ রুবী হোসেন, ঢাকা হোটেলিয়ারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শাফি আহমেদ, লিটল বাংলাদেশ ইমপ্রুভমেন্ট ট্রাষ্ট লিঃ এর পরিচালক মুজিব সিদ্দিকী, অরেঞ্জ কাউন্টি গ্রীষ্মমেলা ২০১২ আহবায়ক নেতৃবৃন্দ মামুন, রেজা, রাজু, রবি, বিশিষ্ট ক্রীড়াবিদ ও সংগঠক কে এম জামান, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী জনাব ইয়াহিয়া, সৈয়দ দিলির হোসেন দিলির, সাংবাদিক জাহান হাসান, সৈয়দ এম হোসেন বাবু, কুদ্দুস খান, কবি ফারহা সাঈদ, অভিনেত্রী নিপা মোনালিসা প্রমুখ। এছাড়া লস এঞ্জেলেস, ইংল্যান্ড অ্যাম্পায়ার, রেডল্যান্ড, ল্যাংকাষ্টার থেকে বিশিষ্টজনেরা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানের সার্বিক তত্ত্বাবধায়নের দায়িত্ব পালন করেন এন আর বি ইউ এস এ, মেড ইন বাংলাদেশের পরিচালক তারিক বাবু ও ফারহানা টিনা। অনুষ্ঠানের শেষে তারিক বাবু ও ফারহানা টিনার বিবাহ বার্ষিকী উপলক্ষ্যে বাংলাদেশের স্বুস্বাদু খাবার পরিবেশন করে টেস্ট অব বাংলাদেশ।

ছবিঃ সৈয়দ এম হোসেন বাবু

ছবি লিংকঃ ক্লিক করুনঃ

লস এঞ্জেলেস এ বাফলার অভিষেক অনুষ্ঠিত BUFLA Appreciation Dinner and Inauguration Ceremony


লস এঞ্জেলেস এ বাফলার অভিষেক অনুষ্ঠিত

BUFLA Appreciation Dinner and Inauguration Ceremony

গত ২৪শে জুলাই লস এঞ্জেলেসের লিটল বাংলাদেশ এলাকায় দি উইশ্যায়ার হোটেলে বাংলাদেশ ইউনিটি ফেডারেশন অব লস আঞ্জেলেস-বাফলার অভিষেক অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ ডে প্যারেডের পর প্রতি বছর বাফলার নির্বাচন নিয়মিতভাবে অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। অভিষেক অনুষ্ঠানে পুরাতন কমিটি নতুন কমিটির কাছে দায়িত্ব হস্তান্তর করে । বাফলার এবারের নির্বাচিত কর্মকর্তারা হলেন-সভাপতি সামছুদ্দিন মানিক,সহসভাপতি কাজী মশহুরুল হুদা,সাধারণ সম্পাদক মারুফ ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক আশ্রাফ আহমেদ আকবর, সাংষ্কৃতিক সম্পাদক আন্জুমান আরা শিউলী, কোষাধ্যক্ষ আক্তার হোসেন মিয়া ও পাব্লিক রিলেশন অফিসার তারেক রহমান । অনুষ্ঠানে কনসাল জেনারেল মোঃ এনায়েত হোসেন,মিসেস এনায়েত হোসেন ও ভাইস কনসাল শামীম আহমেদ ছাড়াও লস এঞ্জেলেসএর গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন । ডিনার আপ্যায়ন, স্বাগত নৃত্য ও বাংলাদেশ থেকে আগত জনপ্রিয় শিল্পী রুমানা ইসলাম খানের সঙ্গীত দিয়ে গভীর রাত্রিতে অভিষেক অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘটে।


অভিষেক অনুষ্ঠানের ভিডিও প্লে-লিষ্ট Bufla Video Playlist

অভিষেক অনুষ্ঠানের ভিডিও ১

অভিষেক অনুষ্ঠানের ভিডিও ২

অভিষেক অনুষ্ঠানের ভিডিও ৩

বাংলাদেশ ইউনিটি ফেডারেশন অব লস আঞ্জেলেস

বাফলার নতুন কমিটির শপথ গ্রহন

BUFLA : বাফলা’র বর্তমান পরিস্থতি নিয়ে মুক্ত আলোচনাঃ ক্ষমতার অর্ন্তদ্বন্ধ থেকেই কি বাফলা ক্লিনজিং কমিটির উদ্ভব হয়েছিল?


বাফলা’র বর্তমান পরিস্থতি নিয়ে মুক্ত আলোচনাঃ

ক্ষমতার অর্ন্তদ্বন্ধ থেকেই কি বাফলা ক্লিনজিং কমিটির উদ্ভব হয়েছিল?

বাফলায় সেই অপ্রীতিকর মিটিং এ যা ঘটেছিলো, তার সূত্রপাত হয় অনেক আগেই। ধীরে ধীরে বাফলা যখন স্থানীয় ও মেইন ষ্ট্রীমে স্থান করে নিতে লাগলো , সেখানে বাংলাদেশ কমিউনিটিকে প্রপারভাবে রিপ্রেজেন্ট করার সুযোগ সৃষ্টি তৈ্রী হলো। বাফলার কিছু কর্মকর্তা তখন সিটিহলে ও কোরিয়ান কম্যুনিটির সাথে লিটল বাংলাদেশ নিয়ে নিয়মিত যোগাযোগ রাখা শুরু করলেন। সেই সকল বাফলার নেতারা সিটি হলে বাংলাদেশ ইউনিটি ফেডারেশন অব লস এঞ্জেলেস ( বাফলা) -কে সমগ্র কম্যুনিটির রিপ্রেজেন্টেটিভ হিসাবে উপস্থাপন করছিলেন। মুজিব-হাসেম-মাহবুব’রা এক হয়ে কাজ করা শুরু করলেন। এর মাঝে স্ব-প্রচেষ্টায় মুজিব সিদ্দীকি লিটল বাংলাদেশ নিয়ে অনেক দূর এগিয়ে গিয়েছেন। ইতিমধ্যে বাফলার নেতৃত্বে পরিবর্তন আসলেও সিটি হল বা মেইন ষ্ট্রীমে অফিশিয়াল নেতৃত্বে পরিবর্তন আসলোনা। বাফলার নতুন ক্যাবিনেট বাফলাকে আরো প্রেজেন্টেবল ও শক্তিশালী করার উদ্যোগের অংশ হিসাবে ২য় বাফলা সংবিধান সংশোধনী আনলেন। নতুন কয়েকটা সংগঠনকে সম্যমতো বাফলায় অর্ন্তভূক্ত না করাতেও জটীলতা তৈ্রী হয়। যাতে আসল ক্ষমতার অর্ন্তদ্বন্ধ থেকে দৃষ্টি অন্যদিকে প্রবাহিত করা যায়, তার সুযোগ ও তৈ্রী হলো। একজন বাফলার কর্মকর্তাকে নীতি বর্হিভূত কর্মকান্ডের জন্য বহিষ্কার করা হলো, তার সূত্র ধরে বাফলার নির্বাচনে পরাজিত শক্তিরা জোট বাধা শুরু করে নিজস্ব প্রভাব বলয় সৃষ্টি করে। তার পরিপ্রেক্ষিতে তখন কোন কোন ইসি মেম্বার নিজেদের যোগ্যতার প্রশ্ন তুললেন, সেই থেকে বাফলার ভেতর অর্ন্তদ্বন্ধ শুরু।

বালা যখন আবার অকার্যকর হলো ও লিটল বাংলাদেশ নিয়ে যখন জোরে-সোরে কার্যক্রম শুরু হলো, বাফলার সাংগঠনিক শক্তিকে দুর্বল করতে একটি মহল উঠেপড়ে লাগলো, সুচিন্তিত ভাবে রাজাকার ইস্যুকে সামনে নিয়ে আসা হলো বিভক্তির জন্যে। যাদের হাতে পূর্বে ক্ষমতা ছিলো তারাই নিজেদের তৈ্রী সংবিধানএর নীতি অনুসরন না করে নিজেদেরই তৈ্রী বাফলাকে অকার্য্যকর ঘোষনা করলেন। তারা নিজেরা যখন ক্ষমতায় ছিলেন, শত প্রচেষ্টা সত্বেও তথাকথিত স্বঘোষিত সংগঠনদের নূন্যতম ফী ও কম্যুনিটি সময়ের বিনিময়ে বাফলার মেম্বার করতে পারেন নি, অথবা তখনকার বাফলার নেতৃত্ব তাদের পছন্দ হয়নি, তাদেরকে নিয়ে রিফর্ম বাফলার উদ্যোগে অনেকে হয়তো খুশী হবেন, কিন্তু কম্যুনিটিকে একই নামে বিভক্ত করা কি উচিৎ হচ্ছে কিনা সেটা ভাববার সময় এসেছে। যা বাফলার সাংবিধানিক ভাবে সংশোধন করার সুযোগ ছিলো তাকে পাশ কাটিয়ে নতুন ফেডারেশন করার চিন্তা-ভাবনাকে বাফলার নেতৃবৃন্দকেও আমলে আনতে হবে। যেখানে লিটল বাংলাদেশ কম্যুনিটিকে এনার্জাইজ করার ও নিজেদের ম্যাপকে লস এঞ্জেলেসএ প্রতিষ্ঠিত করার সুযোগ তৈ্রী হয়েছে , স্বাধীনতা স্বপক্ষের শক্তিরা যখন বাফলার নেতৃত্বে, তখন রিফর্ম বাফলার উদ্যোগকে অনেকে স্বাগত জানাতে পারছেন না।