দক্ষিণ এশিয়ার ২০ সুন্দরী লেখিকা

দক্ষিণ এশিয়ার ২০ সুন্দরী লেখিকা

ফাতিমা ভুট্টো
ফাতিমা ভুট্টোর বাড়ি পাকিস্তানে। জুলফিকার আলী ভুট্টোর নাতনি, বেনজির ভুট্টোর ভাতিজি তিনি। বয়স সবে ২৬। ইতিমধ্যে তিনি ‘হুইস্পার্স অব দ্য ডেজার্ট’ নামে একটি কবিতা সংকলন এবং ‘সঙ অব ব্লাড অ্যান্ড সোর্ড’ নামে একটি আ
Íজৈবনিক বই লিখেছেন। তবে এই লেখালেখির সীমানা পেরিয়ে, লেখক পরিচয় ছাপিয়ে তিনি হয়ে উঠেছেন অনেকের হƒদয়ের দেবী।

মণিকা আলী
মণিকা আলী তার প্রথম উপন্যাস ব্রিক লেন দিয়েই আন্তর্জাতিক অঙ্গনে ব্যাপক পরিচিতি পান। এই বইটি ২০০৩ সালে ম্যান বুকার পুরস্কারের সংপ্তি তালিকায় ছিল। মণিকা আলীর বয়স ৪০ বছর। দুই সন্তানের মা। ব্রিক লেন ছাড়াও তিনি তিনটি বই লিখেছেন। আলী বাংলাদেশি বাবা আর ইংরেজ মায়ের গর্ভে মণিকা আলীর জ
š§ ঢাকায়। তবে জীবনের বেশির ভাগ সময় কেটেছে ইংল্যান্ডে। ব্রিক লেন বইটিতে বাংলাদেশি সংস্কৃতি তুলে ধরা হয়েছে।

ঝুম্পা লাহিড়ি
ইংল্যান্ডে বাঙালি অভিবাসী পরিবারে তার জ
š§। তবে জš§র মাত্র তিন বছর বয়সেই মা-বাবার সঙ্গে আমেরিকা পাড়ি জমান। তার প্রথম বই ‘ইন্টারপ্রেটার অব ম্যালাডিজ’। ছোটগল্পের সংকলন এটি। বইটি ২০০০ সালে পুলিৎজার পুরস্কার পায়। এরপর তিনি আরও একটি ছোটগল্পের বই প্রকাশ করে। পরে উপন্যাসের দিকে যান। তার প্রথম উপন্যাস হলো ‘দ্য নেমসেক’। এই উপন্যাস অবলম্বনে সিনেমা বানানো হয়েছে।

কামিলা শামসী
কামিলা শামসীর জ
š§ পাকিস্তানের করাচিতে। মাত্র ২৫ বছর বয়সেই তিনি তার প্রথম উপন্যাস ‘দ্য সিটি বাই দ্য সি’ লিখেন। এই বইয়ের জন্য ১৯৯৯ সালে প্রধানমন্ত্রী পুরস্কার পান। ত্রিশ পেরোনো আকর্ষণীয় সৌন্দর্যের অধিকারী এই লেখিকার ৪টি বই ইতিমধ্যে প্রকাশিত হয়েছে। তিনি দ্য গার্ডিয়ান পত্রিকায় নিয়মিতভাবে বই আলোচনা এবং কলাম লিখে থাকেন।

মীনাক্ষী রেড্ডি মাধবন
ঘরভর্তি লোকের মধ্যে থেকে মীনাক্ষী
 রেড্ডি মাধবনকে খুঁজে পাওয়া কোনো ব্যাপারই না! কারণ, তার জ্বলজ্বলে সৌন্দর্যই আপনাকে চিনিয়ে দেবে তাকে। ২০ পেরোনো প্রাণবন্ত এই লেখক ও ব্লগার জানেন, কী করে সবার মাঝে নিজের উপস্থিতির দীপ্তি ছড়িয়ে দিতে হয়। মীনাক্ষী এ পর্যন্ত দুটি বই লিখেছেন। একটি আত্মজৈবনিক ভঙ্গির রচনা ‘ইউ আর হেয়ার’। অন্যটি হলো ‘কনফেশনস অব অ্যা লিস্টম্যানিয়াক’।

তাহমিমা আনাম
তসলিমা নাসরিনের পর বাংলাদেশের নতুন সেনসেশন হলেন তাহমিমা আনাম। ৩৫ বছর বয়সী তাহমিমা আনাম সমৃদ্ধ সাহিত্যিক পরিমণ্ডলের ভেতর থেকেই সাহিত্যচর্চা শুরু করেছেন। তার বাবা মাহ্ফুজ আনাম বাংলাদেশের দ্য ডেইলি স্টার পত্রিকার সম্পাদক। তার দাদা আবুল মনসুর আহমদ একজন খ্যাতিমান লেখক এবং রাজনীতিক ছিলেন। বাংলাদেশের স্বাধীনতাযুদ্ধকে উপজীব্য করে তাহমিমা আনাম তার প্রথম উপন্যাস ‘গোল্ডেন এইজ’ লেখেন। এটার সিকুয়েল হিসেবে তিনি তার দ্বিতীয় বই ‘দ্য গুড মুসলিম’ লিখেছেন। তাহমিমা আনামের জ
š§ ঢাকায়। বাবার চাকরিসূত্রে প্যারিস, নিউইয়র্ক সিটি এবং ব্যাংককে বেড়ে উঠেছেন।

আনজুম হাসান
আনজুম হাসান ভারতের কবি ও ঔপন্যাসিক। ‘লুনাটিক ইন মাই হেড’ নামের প্রথম উপন্যাস দিয়েই তিনি সবার মনোযোগ কাড়েন। নব্বই দশকের প্রথমার্ধে উত্তর-পূর্ব ভারতের পাহাড়ি স্টেশনকে ঘিরে গড়ে ওঠা উপন্যাসটি অদ্ভুত সুন্দর। এই বইটি ক্রসওয়ার্ড বুক পুরস্কারের সংপ্তি তালিকায় ছিল। তার দ্বিতীয় বই হলো ‘নেটি’। ২০০৮ সালে এটাও ম্যান এশিয়ান লিটারারি পুরস্কার তালিকায় ছিল।

মঞ্জুশ্রী থাপা
২০০৫ সালে ফেব্র”য়ারি মাসে যেদিন কাঠমান্ডুতে ক্যু সংগঠিত হয়, তার সপ্তাহ খানেক আগে তার প্রথম বই ‘ফরগেটস কাঠমান্ডু: অ্যান এলিজি ফর ডেমোক্রেসি’ প্রকাশিত হয়। নেপাল কীভাবে ভুল পথে চলছে, সেটাকে উপজীব্য করে কিছুটা স্মৃতি থেকে, কিছুটা ইতিহাসাশ্রয়ী হয়ে, সংবাদভঙ্গিমায় বইটি লেখা হয়েছে। সামরিক অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে লেখার কারণে থাপা নেপাল ছাড়েন। ২০০৬ সালে তার বইটি লেট্রি ইউলিসিস পুরস্কারের সংপ্তি তালিকায় স্থান পায়। ৪৩ বছর বয়সী মঞ্জুশ্রী থাপা এ পর্যন্ত ছয়টি বই লিখেছেন।

তিশানি দোশী
তিশানির মা ওয়েলশ আর বাবা গুজরাটি। চেন্নাইয়ে বেড়ে উঠেছেন তিনি। ১৯৯৯ সালে তিনি লন্ডনে পাড়ি জমান। সেখানে তিনি হার্পারস অ্যান্ড কুইন ম্যাগাজিনের বিজ্ঞাপন বিভাগের চাকরি নেন। এরপর তিনি ভারতে ফিরে এসে সেখানকার ঐতিহ্যবাহী নাচের কোরিওগ্রাফি
Ñচন্দ্রলেখার পরিচিতির উদ্যোগ নেন। তখনই তিনি নাচকে ক্যারিয়ার হিসেবে বেছে নেন। ৩৫ বছর বয়সী এই কবি, লেখক ও নৃত্যশিল্পীর প্রথম কবিতার বই ‘কান্ট্রিজ অব দ্য বডি’ ফরওয়ার্ড পুরস্কার পায়। তিনি ‘দ্য প্লেজার সেকারস’ নামে একটি উপন্যাসও লিখেছেন।

মৃদুলা কোশি
২০০৯ সালে মৃদুলা কোশির প্রথম ছোটগল্পের বই ‘ইফ ইট ইজ সুইট’ শক্তি বাট পুরস্কার লাভ করে। একই বছর বইটি ভোডাফোন ক্রসওয়ার্ড বুক অ্যাওয়ার্ডের সংপ্তি তালিকায় স্থান পায়। ৪৩ বছর বয়সী এই দিল্লিতে বাস করেন। তিনি নানা ধরনের চাকরি করেছেন। এর মধ্যে বিশ্বখ্যাত খাবার ব্র্যান্ড কেএফসির ক্যাশিয়ার থেকে শুরু করে ফ্যাশন শোর ব্যাকস্ট্রেজ ড্রেসার পদও আছে।

ইরা ত্রিবেদী
২০০৫ সালে তিনি যখন মিস ইন্ডিয়া প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেন, তখনই জানতেন তিনি তার প্রথম উপন্যাস ‘হোয়াট উড ইউ ডু টু সেভ ওয়ার্ল্ড’-এর বীজ বপন করলেন। এরপরে ত্রিবেদী আরও দুটি বেস্টসেলার বই ‘দ্য গ্রেট ইন্ডিয়ান লাভ স্টোরি’ এবং ‘দেয়ার ইজ নো লাভ অন ওয়াল স্ট্রিট’ লিখেন। তিনি লেখালেখির সময়টুকু বাদে ‘ইয়োগা’ প্রশিণ দিয়ে থাকেন।

অমরিতা ত্রিপাঠী
দুনিয়ার তাবৎ বইয়ের ফ্যাপে এ পর্যন্ত যত লেখকের পরিচিতি ছাপা হয়েছে, তার মধ্যে মুখশ্রী বোধ হয় অমরিতা ত্রিপাঠীর। তিনি লেখালেখির পাশাপাশি সিএনএন-আইবিএন চ্যানেলে উপস্থাপনার কাজ করে থাকেন। একটি নিউজ চ্যানেলের স্বাস্থ্য এবং বইবিষয়ক সম্পাদক তিনি। তার প্রথম উপন্যাস ‘ব্রোকেন নিউজস’ বইতে অমরিতা গ্ল্যামার দুনিয়া এবং সেখানকার সত্যিকারের চিত্র উ
š§াচন করেছেন।

Advertisements

তথ্য কণিকা Jahan Hassan জাহান হাসান
Ekush, Publisher/Editor/ Hollywood media hyphenate/ একুশ নিউজ মিডিয়া, লিটল বাংলাদেশ, লস এঞ্জেলেস / 1 818 266 7539 / FB: JahanHassan

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: