রক্তচোষা এমএলএম-ফাঁদে চলচ্চিত্র তারকারা

রক্তচোষা এমএলএম- এইমওয়ের ফাঁদে চলচ্চিত্র তারকারা
মএলএম ব্যবসায় কোনো নীতিমালা না থাকায় ব্যাঙের ছাতার মতো অলিগলিতে গজিয়ে উঠছে এমএলএম কোম্পানি। সম্প্রতি পল্টনে এ ধরনের একটি এমএলএম কোম্পানির জন্ম হয়েছে। এ নব্য এমএলএম কোম্পানির নাম এইমওয়ে করপোরেশন। রিদোয়ান বিন ইসাহাক এ কোম্পানির চেয়ারম্যান। পুরানা পল্টনের বায়তুল আবেদ কমপ্লেক্সে এ কোম্পানির কার্যক্রম শুরু হলেও পরবর্তী সময়ে রিদোয়ান বিন ইসাহাক তার নিজস্ব ভবন ৫১/১, পল্টনে এইমওয়ে করপোরেশনের ব্যবসায়িক কার্যক্রম প্রসারিত করেছেন। এরই মধ্যে এ কোম্পানির বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ উঠেছে।
 এইমওয়ে কর্তৃপক্ষ প্রথমে ছয় মাসে দ্বিগুণ টাকা ফেরত দেয়ার কথা বলে ১৮ মাস বা তার পরও দ্বিগুণ টাকা ফেরত দেয়া হচ্ছে না এমনটি জানান   ভুক্তভোগী বেশ কয়েকজন।  নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন জানান, এইমওয়ে কর্তৃপক্ষ বিভিন্নভাবে আমাদের সঙ্গে প্রতারণা করছে। ইন্টারনেটে গ্রাহকদের নিজস্ব আইডির মাধ্যমে ব্যালেন্স দেখানোর কথা বললেও বাস্তবে গ্রাহকদের অ্যাকাউন্ট আইডি সার্চ করলে ব্যালেন্স শূন্য প্রদর্শন করে। এছাড়া কোম্পানির ওয়েবসাইডে সম্মুখ পরিকল্পনা হিসেবে বিশটি প্রজেক্টের নাম উল্লেখ থাকলেও কোনোটির কার্যক্রম এখনো শুরু হয়নি।
যার মধ্যে বিপুল পরিমাণ রপ্তানিমুখী গার্মেন্টস শিল্প নির্মাণ, ফার্মাসিউটিক্যালস, ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প, নিজস্ব ব্যাংক, ট্রান্সপোর্ট বিজনেস, মিনারেল ওয়াটার ফ্যাক্টরি, হাউজিং ও ডেভেলপার কোম্পানি, ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক শিল্প, নিজস্ব বীমা শিল্প, লঞ্চ, হেলিকপ্টার থেকে শুরু করে পর্যটন শিল্প অর্থাৎ আল্লাহ পাকের তামাম দুনিয়ার সমস্ত শিল্প কারখানা এমনকি ব্যবসা শেষে সদস্যদের জন্য বিনামূল্যে কবরস্থান নির্মাণের পরিকল্পনার কথাও উল্লেখ রয়েছে।
   শুধুমাত্র সাধারণ জনগণকে স্বপ্ন দেখাচ্ছে। এরই মধ্যে বেশকিছু গ্রাহক তাদের জমাকৃত টাকার দ্বিগুণ আনতে গেলে এইমওয়ে কর্তৃপক্ষ দুই থেকে তিন মাস সময় নিচ্ছে। জানা যায়, এইমওয়ে হারবাল পণ্য ভোক্তাদের কাছে বিক্রি করলেও পণ্যটা মূলত লতা হারবাল নামক একটি হারবাল কোম্পানির পণ্য। শুধুমাত্র এইমওয়ে কোম্পানির লোগোসম্বলিত কিছু ব্যাগে এগুলো ভরে সরবরাহ করা হয়। নানা প্রলোভনে জনগণকে ফাঁদে ফেলছে তারা। এবার প্রতারণার নতুন ভাবনায় সংযোজিত হয়েছে চলচ্চিত্রের কিছু বেকার শিল্পী। চলচ্চিত্র শিল্পীদের ব্যবহার করে তারা প্রতারণা শুরু করেছে। এক সময়ের জনপ্রিয় নায়ক রুবেল, অমিত হাসানকে এ কোম্পানির পরিচালক হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে। ঢাকা এবং ঢাকার বাইরে এইমওয়ের বিভিন্ন কনফারেন্সে রুবেল, অমিত হাসান, ইমন, নীরবসহ চলচ্চিত্রের পরিচিত মুখদের দিয়ে উপস্থাপনা করান। ওইসব বেকার শিল্পীরা এইমওয়ের গুণকীর্তন করে থাকেন। ফলশ্রুতিতে সাধারণ জনগণ যারা এইমওয়ের কনফারেন্সে আসেন তাদের মাঝে এইমওয়ে সম্পর্কে একটা পজিটিভ ধারণা জন্ম নেয়।
প্রিয় নায়ক যখন বলেছেন তা তো মিথ্যা হতে পারে না। এ ধারণা নিয়েই বাড়িতে চলে যায়। পরবর্তীতে গচ্ছিত টাকা-পয়সা এনে জমা করে এইমওয়ের অ্যাকাউন্টে। বিনিময়ে কয়েক ব্যাগ এইমওয়ের হারবাল পণ্যের ব্যাগ নিয়ে বাড়িতে যায়।
হারবাল পণ্যে স্ত্রীর রূপচর্চায় একটু সুবিধা হলেও দ্বিগুণ টাকা ফেরত পেতে বেশ বেগ পেতে হয়। জমাকৃত টাকা যে ফেরত পাবে এ নিশ্চয়তাও নেই। এ আশঙ্কায় থাকতে হয় এইমওয়ের সদস্যদের। চলচ্চিত্রের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বেশ কিছু লোকজন এইমওয়ের সঙ্গে সম্পৃক্ত হওয়ায় চলচ্চিত্রের দুয়েকজন দালালের মাধ্যমে এইমওয়েতে বিভিন্ন প্রলোভনে লোক যোগদান করিয়ে বেশ ফুরফুরে মেজাজে আছে। কারণ তাদের দিন বেশ ভালোই কাটছে। রোজগারও বেশ ভালো।
 চলচ্চিত্রের অবস্থা নাজুক হওয়ায় চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট কেউ কেউ একটু ভালো থাকার আশায়  যোগদান করছে এইমওয়েতে ।
অথচ ভালো থাকার আশায় কখন যে প্রতারণার ফাঁদে পড়েছে সে নিজেও জানে না।
  চলচ্চিত্রের সাইনবোর্ড লাগিয়ে এ ধরনের প্রতারণামূলক ব্যবসা কারো মঙ্গল বয়ে আনে না। এ ধরনের কার্যক্রমে চলচ্চিত্র তারকারা সম্পৃক্ত হওয়ায় তাদের সামাজিক মর্যাদা ক্ষুণ হচ্ছে এমনটি জানান চলচ্চিত্রের সঙ্গে সম্পৃক্ত অনেকেই। তারকাদের সম্মান ধরে রাখতে তাদের নিজেদের সর্বদা সতর্ক থাকতে হবে।
একুশ নিউজ মিডিয়া এখন ফেস বুক এ Video News: www.EkushTube.com Visit us on FaceBook

Cheap International Calls


Advertisements

তথ্য কণিকা Jahan Hassan জাহান হাসান
Ekush, Publisher/Editor/ Hollywood media hyphenate/ একুশ নিউজ মিডিয়া, লিটল বাংলাদেশ, লস এঞ্জেলেস / 1 818 266 7539 / FB: JahanHassan

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: