বাজেট ঘাটতি কমাতে কর সুবিধা প্রত্যাহার করতে হবে : ওবামা

বাজেট ঘাটতি কমাতে কর সুবিধা প্রত্যাহার করতে হবে : ওবামা

বারাক ওবামা

বারাক ওবামা


বাজেট ঘাটতি কমাতে কর সুবিধা প্রত্যাহার করতে হবে : ওবামা যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা গত শনিবার দেশটির বাজেট ঘাটতি সমস্যা মোকাবেলায় কর সুবিধা প্রত্যাহারের প্রয়োজনীয়তার কথা জানিয়েছে। এ ক্ষেত্রে দেশটির তহবিল ব্যবস্থাপক, তেল কোম্পানি ও কোটিপতিদের ওপর এর প্রভাব পড়বে বলে সতর্ক করে ওবামা। খবর রয়টার্সের।
ক্ষমতাসীন ডেমোক্র্যাট দলের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা বাজেট ঘাটতি কমানো বিষয়ে বর্তমানে বিরোধী দল রিপাবলিকানদের সঙ্গে বিরোধে জড়িত। ওয়াশিংটনকে ঋণ পরিশোধে ব্যর্থ হওয়া থেকে ঠেকাতে এবং ঋণের সীমা নির্ধারণে বর্তমানে দু’দলের মধ্যে বিরোধ চলছে।
বাজেট ঘাটতি কমানোর জন্য কর বৃদ্ধি করতে চাচ্ছেন ডেমোক্র্যাটরা। কিন্তু রিপাবলিকানরা বলছেন, কর বৃদ্ধি করা হলে তা দেশটির অর্থনীতির জন্য ক্ষতিকর হবে।
ওবামা তার সাপ্তাহিক রেডিও ও ইন্টারনেট ভাষণে বলেন, ‘প্রতিটি পর্যায়ে কর সুবিধা দেয়া গেলে সবচেয়ে ভালো হতো কিন্তু আপাতত এটা করা সম্ভব নয়।’
তিনি বলেন, ‘আমাদের সাহায্য ছাড়াই বিশাল মুনাফা তুলে আনা লাখপতি, কোটিপতি, তহবিল ব্যবস্থাপক, বেসরকারি বিমানের মালিক অথবা তেল ও গ্যাস কোম্পানিগুলোর কর সুবিধা থাকলে তাদের জন্য এটি লাভজনক হবে। কিন্তু এর ফলে আমাদের অন্য কোনো খাত হতে আরও বড় আকারে ব্যয় সংকোচন করতে হবে।’
কর সুবিধা প্রত্যাহারে ব্যর্থ হলে সম্ভাব্য ব্যয় সংকোচনের জন্য নির্ধারিত বিভিন্ন খাতের তালিকাও তুলে ধরেন তিনি। ওবামা বলেন, ‘ছাত্রদের বলতে হবে, ‘তুমি এ বছর কলেজে বৃত্তি পাবে না’, চিকিত্সা বিশেষজ্ঞদের বলতে হবে, ‘আপনি ক্যান্সার নিয়ে গবেষণা করতে পারবেন না’। হয়তোবা উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের বলতে হবে, ‘স্বাস্থ্যসেবার জন্য তোমাকে আরও বেশি অর্থ ব্যয় করতে হবে।’
তিনি আরও বলেন, ‘এটা যথার্থ নয় এবং ভালো কিছুও নয়। আমাদের বাজেটের ঘাটতি কমাতে হবে কিন্তু আমরা এমন একটি সময়ে আমাদের তা করতে হচ্ছে যখন শিক্ষা, গবেষণা ও প্রযুক্তিতে আমরা বিনিয়োগ করছি, কারণ তা নতুন চাকরি ক্ষেত্র তৈরি করতে পারবে।’
এদিকে ব্যয় কমানো সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বলে রিপাবলিকানদের সাপ্তাহিক ভাষণে দলের সিনেটর ড্যান কোস্ট উল্লেখ করেন।
তিনি বলেন, ‘কংগ্রেসে প্রেসিডেন্ট ও ডেমোক্র্যাটদের স্বীকার করতেই হবে যে তাদের পরিকল্পনা কাজ করছে না। এখন আমাদের স্বীকার করতে হবে, সরকারি ও বেসরকারিভাবে করবৃদ্ধি করা সমস্যার সমাধান নয়। এ সংকট কাটিয়ে উঠতে এখন আমাদের সাহসী পরিকল্পনা ও পদক্ষেপ নিতে হবে।’
এদিকে দুই আগস্টের মধ্যে ঋণের সীমা নির্ধারণ না করলে দেশটি বিপর্যয়ের সম্মুখীন হবে এবং দেশটির ব্যাংকিং খাত আবারও সমস্যার মধ্যে পড়বে বলে যুক্তরাষ্ট্রের অর্থমন্ত্রী টিমোথি গেইথনার হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন।
তবে উভয় পক্ষই ব্যয় সংকোচনে একমত হয়েছে এবং বর্তমানে তিনি ও ভাইস প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ব্যয় কমানোর ক্ষেত্রগুলো নির্ধারণ করছেন বলে ওবামা উল্লেখ করেন। আইনজীবীদের এ বিষয়ে রাজি করানোর প্রক্রিয়াও এগিয়ে চলেছে বলে তিনি জানান।
ওবামা বলেন, ‘গত কয়েক সপ্তাহে ভাইস প্রেসিডেন্ট ও আমি বেশ কয়েকটি খাত নির্ধারণ করেছি যেখান থেকে এক লাখ কোটি ডলারের মতো ব্যয় কমানো সম্ভব।’
তিনি আরও বলেন, ‘এক দশকের মধ্যে ওয়াশিংটন দেশটির ঋণ নেয়ার সীমা অতিক্রম করার ফলে আমাদের আরও বেশি সাশ্রয় করতে হবে।’ বণিক বার্তা ডেস্ক

আমাদের সময়, আলোচনা, ইত্তেফাক, কালের কণ্ঠ, জনকন্ঠ, ডেসটিনি, দিগন্ত, দিনের শেষে, নয়া দিগন্ত, প্রথম আলো, বাংলাদেশ প্রতিদিন, ভোরের কাগজ, মানবজমিন, মুক্তমঞ্চ, যায় যায় দিন, যায়যায়দিন, যুগান্তর, সংগ্রাম, সংবাদ,চ্যানেল আই, বাঙ্গালী, বাংলা ভিশন, এনটিভি,এটিএন বাংলা, আরটিভি, দেশ টিভি, বৈশাখী টিভি, একুশে টিভি, প্রবাস, প্রবাসী, ঠিকানা, জাহান হাসান, বাংলা, বাংলাদেশ, লস এঞ্জেলেস, লিটল বাংলাদেশ, ইউএসএ, আমেরিকা, অর্থনীতি, প্রেসিডেন্ট ওবামা,মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র,অর্থ, বাণিজ্য, শেখ হাসিনা, খালেদা জিয়া, আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জামাত, রাজাকার, আল বদর, সুখ, টেলিভিশন, বসন্ত উৎসব, Jahan, Hassan, jahanhassan, Ekush, bangla, desh, Share, Market, nrb, non resident, los angeles, new york, ekush tube, ekush.info,

Advertisements

তথ্য কণিকা Jahan Hassan জাহান হাসান
Ekush, Publisher/Editor/ Hollywood media hyphenate/ একুশ নিউজ মিডিয়া, লিটল বাংলাদেশ, লস এঞ্জেলেস / 1 818 266 7539 / FB: JahanHassan

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: