পার্টি ড্রাগ : কেটামিন : ভয়ঙ্কর মাদক ইয়াবার পর এবার দেশে এসেছে কেটামিন

ভয়ানক মাদক কেটামিন

আনিস রহমান

ভয়ঙ্কর মাদক ইয়াবার পর এবার দেশে এসেছে কেটামিন। মাদকাসক্তদের কাছে এটা এখন দিন দিন জনপ্রিয় হচ্ছে। নেশার স্বর্গরাজ্য হিসেবে পরিচিত আমেরিকা-ইউরোপ ঘুরে ওই মাদক এখন মধ্যপ্রাচ্য, দক্ষিণ পূর্ব এশিয়া, অস্ট্রেলিয়া ও মিয়ানমার ঘুরে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের অতিরিক্ত পরিচালক এবং প্রধান রাসায়নিক পরীক্ষক মো. আবু তালেব বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, বিষয়টি নজরে আসার পর কিছুদিন আগে জাতিসংঘ জরুরি ভিত্তিতে ওই ড্রাগ নিয়ন্ত্রণে আনতে বাংলাদেশ সরকারকে চিঠি দিয়েছে। ওই চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর কাজ করছে। খুব শীঘ্রই কেটামিনকে মাদক আইনের আওতায় আনা হবে।

শুল্ক বিভাগ ও আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের কর্মকর্তারা গত ১৯ আগস্ট হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ৮২ কেজি সাদা গুঁড়া পদার্থের বড় চালান আটক করে। এরপর তারা এগুলোকে হেরোইন বলে ঘোষণা দেয়। ওই পাউডারগুলো মালয়েশিয়ায় পাচার হচ্ছিল। পরে যুক্তরাষ্ট্রের একটি সংস্থা তাদের নয়াদিলি্লর মাদক বিশেষজ্ঞ এজেন্টের মাধ্যমে পরীক্ষা করে নিশ্চিত হয় উদ্ধার হওয়া গুঁড়াগুলো হেরোইন নয়, কেটামিন। এরপর থেকে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর ও আইনশৃক্সখলা বাহিনীর মধ্যে হৈচৈ পড়ে যায়। তারা কেটামিন আমদানির ওপর নজরদারি শুরু করে। গোয়েন্দা সূত্র জানায়, মাদকবিষয়ক তিনটি আন্তর্জাতিক কনভেনশন, সার্ক কনভেনশন এবং বাংলাদেশের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের কোথাও কেটামিন শব্দটি এখনো ‘মাদক’ হিসেবে চিহ্নিত হয়নি। এই সুযোগে কয়েকটি ওষুধ কোম্পানি কেটামিন আমদানি এবং বাজারজাত শুরু করেছে।

দেশে দেশে নিয়ন্ত্রণ : কেটামিনের ওপর প্রথম নিয়ন্ত্রণ আরোপকারী দেশ যুক্তরাষ্ট্র। ১৯৯৯ সালের ১২ আগস্ট তারা তৃতীয় শ্রেণীর ডিপ্রেজেন্ট মাদক হিসেবে তালিকাভুক্ত করে। চীন ও অস্ট্রেলিয়া এ নিয়ন্ত্রণ আরোপ করে ২০০৪ সালে। ব্রাজিলও ২০০৪ সালে একমাত্র পশু চিকিৎসা ছাড়া সর্বক্ষেত্রে এর ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। ডেনমার্ক ও ফ্রান্স সম্প্রতি বিজ্ঞান গবেষণা ও অত্যাবশ্যকীয় চিকিৎসা ছাড়া সর্বক্ষেত্রে কেটামিনের ব্যবহার নিষিদ্ধ করেছে। মালয়েশিয়া, ফিলিপাইন সিঙ্গাপুরসহ আরও কয়েকটি দেশে ২০০৬ সাল থেকে এর ব্যবহার সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। যুক্তরাজ্য (ইউকে) ২০০৬ সালে কেটামিনের ওপর নিয়ন্ত্রণ আরোপ করে। বাংলাদেশ ভারতসহ সার্কভুক্ত দেশে এখনো কেটামিনের ওপর কোনো নিয়ন্ত্রণ বা আইনি নজরদারি নেই। ফলে ভারত হয়ে উঠেছে কেটামিনের অন্যতম প্রধান উৎস দেশ। মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোও নিয়ন্ত্রণের বাইরে। ফলে মাদক পাচারকারীরা ভারত ও মিয়ানমার থেকে কেটামিন আমদানি করে বাংলাদেশ দিয়ে মধ্যপ্রাচ্যসহ বিভিন্ন দেশে পাঠায়।

পার্টি ড্রাগ : কেটামিনকে তার বাহ্যিক আকার আকৃতি রং গন্ধ ইত্যাদির কারণে অনেকেই কোকেন কিংবা ক্রিস্টাল মেথামফিটামিন বা ‘আইস’ মনে করে বিভ্রান্তের শিকার হন। বিভিন্ন দেশে কেটামিনের বিভিন্ন ডাক নাম রয়েছে। বাণিজ্যিক নামও রয়েছে বহু। উচ্ছল তরুণ-তরুণীদের নাইট ক্লাব এবং সাপ্তাহিক পার্টিতে অনবরত নাচের জন্য ব্যবহৃত হয় বলে এটাকে অনেকে র‌্যাভ ড্রাগ বা পার্টি ড্রাগও বলে থাকে।

ওষুধ হিসেবে : ব্যবহার ক্ষেত্রে কেটামিনের নিরাপত্তা ও নির্ভরযোগ্যতার কারণে ১০৭০ সাল থেকে হতাশা বিষাদ, নৈরাশ্য ও মানসিক অবসাদসহ অন্যান্য মনোবৈকল্য ও মনোরোগ চিকিৎসায় কেটামিনের ব্যাপক ব্যবহার শুরু হয়। এর বেদনানাশক কার্যকারিতার জন্য ভিয়েতনাম যুদ্ধ, আফগান যুদ্ধ এবং ইরাক যুদ্ধেও যুদ্ধাহত সৈনিকদের ক্ষতস্থানের যন্ত্রণা উপশমে এটি ব্যাপকভাবে ব্যবহৃত হয়। মাদকসেবীদের মধ্যে কেউ কেউ কেটামিনকে ইনজেকশন আকারে, কেউ আবার পানীয়ের সঙ্গে মিশিয়ে সেবন করে। কেটামিন পাউডার বা ট্যাবলেট পাউডার বা ক্রিস্টাল আকারেও মাদকাসক্তরা সরাসরি সেবন করে থাকে।

পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া : কেটামিন মানবদেহে অনুভূতি ও উপলব্ধির যাবতীয় শৃক্সখলা উলটপালট করে দেয়। চলাফেরার ক্ষেত্রে শরীরের স্বাভাবিক ভারসাম্য নষ্ট, সময় স্থান পরিবেশ ও পারিপাশ্বর্িকতার ধারণা লোপ, আত্মপরিচয় ও আত্মউপলব্ধিবোধ হরণ, বমি বমি ভাব, স্নায়ুবিক আবসাদ ও নিষ্ক্রিয়তা, আংশিক অবসাদ বা উত্তেজনা ইত্যাদি তৈরি করে। দীর্ঘদিন কেটামিন সেবনে স্থায়ীভাবে স্মৃতিভ্রষ্টতা এবং অন্ধত্ব আসাও কেটামিনের আরও একটি ভয়ঙ্কর পরিণতি।
জাহান হাসান একুশ অর্থ বাণিজ্য ইয়াবা পার্টি ড্রাগ কেটামিন কোক yaba cocaine drugs bangla desh Share Market

Advertisements

তথ্য কণিকা Jahan Hassan জাহান হাসান
Ekush, Publisher/Editor/ Hollywood media hyphenate/ একুশ নিউজ মিডিয়া, লিটল বাংলাদেশ, লস এঞ্জেলেস / 1 818 266 7539 / FB: JahanHassan

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s